স্ত্রী সহবাসের নিষিদ্ধ সময় গুলো গুলো জেনে নিন

 

স্ত্রী সহবাসের নিষিদ্ধ সময়

ইসলামে যেমনি সব জিনিসের স্বাধীনতা দেয়া হয়েছে তেমনি কিছু ক্ষেত্রে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ইসলামের স্ত্রী সহবাসের নিষিদ্ধ সময় ও ইসলামে সহবাসের নিষিদ্ধ দিন সম্পর্কে আজকে জানবো। 


 রমজান মাসে রোজা রেখে সহবাস

ইসলামে রোজা রেখে রমজানে সহবাস কি নিষিদ্ধ করা হয়েছে, তবে রাতের বেলায় আপনি চাইলে অবশ্যই সহবাস করতে পারেন। রোজা রেখে কোন অবস্থায় দিনের বেলা সহবাস করা যাবে না। ইসলামে রোজা রেখে সহবাস করলে তার কাফফারা আদায় করতে হবে। কার কা পার হতে একটানা দুই মাসে রোজা রাখতে হবে নচেৎ অক্ষম হলে 60 জন মিসকীন কে খাওয়াতে হবে ? 

হজ্জ ওমরা অবস্থায় সহবাস নিষিদ্ধ

যখন কোন ব্যক্তির শাওয়াল, যিলহজ্জ, জিলকদ মাসে হজ পালন করার সংকল্প করে, তখন তার জন্য স্ত্রী সহবাস করা জগরা বিভাগ এবং ফ্যাসাদ সৃষ্টি না করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সারা দিনে রাতে যে কোন সময় সহবাস ইসলামে বৈধ করা হয়েছে। 

আরো  খবর পরুনঃ দীর্ঘক্ষন সহবাসের ৫ টি ঘরোয়া উপায়


স্ত্রীর মাসিক বা পিরিয়ড এর সময় 

সাধারণত মহিলাদের প্রতি মাসে একবার পিরিয়ড বা ঋতুস্রাব হয় থাকে। ঋতুস্রাব বা পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে ইসলামে সহবাস সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তাই অবশ্যই স্ত্রীর মাসিক বা পিরিয়ড এর সময় সম্পূর্ণরূপে সহবাস পরিত্যাগ করতে হবে। 

এই তিনটি নিষিদ্ধ সময় ব্যতীত উদ্দিনের অন্য যে কোন সময় সহবাস করা যাবে। তবে সহবাস করার সময় অবশ্যই নির্জন ও গোপন স্থান নির্ধারণ করতে হবে। 

সহবাস করার সময় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যাতে নাবালক ছেলে পুরুষ বা অন্য কোন মানুষ দেখতে না পারে। দিনে বেড়াতে যে কোন সময় সহবাস করা যাবে এতে কোনো বিধিনিষেধ নেই।

 

আরো  খবর পরুনঃ

 দীর্ঘক্ষন সহবাসের ৫ টি ঘরোয়া উপায়

কোন বয়সে মেয়েদের সেক্স পাওয়ার বেশি থাকে থাকে

দিনের কোন সময় নারীদের সেক্স পাওয়ার বেশি থাকে।

প্রতিদিন স্বামী স্ত্রী যৌন সঙ্গম সহবাসের উপকারিতা


Post a Comment

অপেক্ষাকৃত নতুন পুরনো